দ্য ডার্ক ডেভিল pdf Review

the dark devil pdf
Titleদ্য ডার্ক ডেভিল
Author
Publisher
ISBN9789849448167
Edition1st Published, 2020
Number of Pages111
Countryবাংলাদেশ
ফাইল ফরম্যাটepub, MOBI, Pdf free Download(পিডিএফ ডাউনলোড)

 

এমএমএফ! অর্থাৎ মিরাকল মিশন ফোর্স। একটি গোপন সংস্থা। যা মানুষের চোখের আড়ালে সৃষ্টি হওয়া বিভিন্ন অতিপ্রাকৃত রহস্য উদঘাটন করে থাকে। তেমনই এমএমএফ এর একটি অনবদ্য মিশন নিয়ে তৈরি খালিদ হাসানের লেখা প্রথম বই “ডার্ক ডেভিল” ; পাঠকসমাজে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।
গল্পের মূল চরিত্র এজেন্ট খালিদ। দাদার মৃত্যুর মাধ্যমে তিনি যুক্ত হন এমএমএফ এর সাথে। ধীরে ধীরে একের পর এক মিশনে দুঃসাহসিকতার পরিচয় দিয়ে শত্রুদের মনে ত্রাসের সৃষ্টি করেন। বিজ্ঞানের চর্চার মাধ্যমে উনাকে দেয়া হয় ভ্যাম্পায়ারের সত্তা। সবার কাছে এক নামে পরিচিত হয়ে যান। কিন্তু উনার একটা ভুলের কারণে ধ্বংসের মুখে চলে যেতে হয় হোমিওবাসিদের। হোমিও, পৃথিবীর ন্যায় একটি গ্রহ। যেখানকার একটি গোপন সংস্থা “DWN”, শাসন করতে চায় সম্পূর্ণ হোমিও। আর তাদের পথ প্রদর্শক হলো এক অমর শয়তান। যার নাম হিলিও। “ডার্ক ওয়ার্ল্ড” বইটার খোলা হয়েছিল পৃথিবীতে। সেখানেই মুক্ত হয়ে যায় হিলিও। হাজার হাজার বছর বন্দী থাকার পর যখন সে মুক্তি পেল তখনই নিজের ধ্বংসাত্বক শক্তি দেখানোর জন্য ফিরে গেল হোমিও-তে। তাকে আরও একবার বশ করার জন্য শুরু হয় এজেন্ট খালিদের নতুন মিশন। গোপনে হোমিও গ্রহে পাড়ি জমান তিনি। কারণ ভুল করে তিনি যে অমর শয়তানকে মুক্ত করেছেন, তা কাউকে জানাতে চান না। শুরু হয় একের পর এক রহস্য আর ভয়ংকর সব যাত্রা। তিনি কি পারবেন সেই গোটা সংস্থাসহ হিলিওকে হারাতে?
গল্পের সবার প্রিয় চরিত্র এজেন্ট খালিদ হলেও, আমার পছন্দ হয় হিলিওকে। তার কষ্টে ভরা অতীত। অবহেলা আর ঘৃণা একটা মানুষকে কোন পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারে তা দেখানো হয়েছে এই বইয়ে। গল্পের প্রতিটা লাইন আপনাকে রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। নিখুঁতভাবে বর্ণনা আপনাকে নিয়ে যাবে কল্পনার জগতে। বিশেষ করে লেখকের সৃষ্ট অনবদ্য কথোপকথনে আপনি সন্তুষ্ট হবেন। ডুবে থাকতে চাইবেন প্রতিটা রহস্যের লাইনে। সেইসাথে অঙ্কিতের হাস্যকর সব কথোপকথন আর কাণ্ড আপনাকে অনিচ্ছা সত্ত্বেও হাসাতে বাধ্য। তবে গল্পের সবচেয়ে বড় টুইস্ট ছিল টাইম ট্রাভেল এর ব্যাপারটা। লেখক এতো নিখুঁতভাবে এই প্লট সাজিয়েছেন যে প্রতিটা মুহূর্তে টানটান উত্তেজনা অনুভব করবেন। আপনি ভাবতেও পারবেন না পরবর্তীতে কি হতে চলেছে।
আমার প্রিয় বইয়ের তালিকায় এই বইটা একটি। তবে বইয়ের কিছু কিছু অংশ খারাপ লেগেছে। যেমন, জ্বিন সিকান্দার, কিং এডাম, এলভিস এরকম কিছু চরিত্রকে কল্পনা করতে প্রচুর অসুবিধে হয়েছিল। কারণ লেখক কখনো তাদের আকৃতি বর্ণনা করেননি। কল্পনায় নিজে থেকেই এদের আকৃতি দিতে হয়েছে। তাছাড়া হিলিও-র দানবীয় অলঙ্কর আরেকটু স্পষ্ট করলে তাকে কল্পনা করতে সুবিধা হতো। এরকম কিছু গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আরেকটু সময় দিলে গল্পটা আরও সুন্দরভাবে ফুটে উঠত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *